Zephaniah 2

1হে লজ্জাহীন জাতি, তোমরা একত্র হও, একসংগে জড়ো হও। 2সেই দিন তুষের মত উড়ে আসছে; সেইজন্য নির্দিষ্ট সময় আসবার আগে, সদাপ্রভুর জ্বলন্ত ক্রোধ তোমাদের উপরে আসবার আগে, তাঁর ভীষণ অসন্তোষ তোমাদের উপরে পড়বার আগে তোমরা একসংগে জড়ো হও। 3হে দেশের সব নম্র লোকেরা, তোমরা যারা সদাপ্রভুর আদেশমত কাজ কর, তোমরা তাঁর ইচ্ছামত ন্যায়ভাবে ও নম্রভাবে চল; তাহলে সদাপ্রভুর ক্রোধের দিনে হয়তো তোমরা আশ্রয় পাবে। 4গাজা জনশূন্য হবে আর অস্কিলোন ধ্বংসস্থান হয়ে পড়ে থাকবে। দিনের বেলাতেই অস্‌দোদের লোকদের তাড়িয়ে দেওয়া হবে আর ইক্রোণকে উপ্‌ড়ে ফেলা হবে। 5হে করেথীয় লোকেরা, তোমরা যারা সমুদ্রের ধারে বাস কর, ধিক্‌ তোমাদের! হে পলেষ্টীয়দের দেশ কনান, তোমার বিরুদ্ধে রয়েছে সদাপ্রভুর এই বাক্য, “আমি তোমাকে এমনভাবে ধ্বংস করব যে, তোমার মধ্যে কেউ থাকবে না।” 6সাগরের কিনারার এলাকা হবে চারণ ভূমি; সেখানে থাকবে রাখালের গুহা ও ভেড়ার খোঁয়াড়। 7সেই এলাকা যিহূদার বংশের বেঁচে থাকা লোকদের অধিকারে থাকবে; সেখানে তারা পাল চরাবার জায়গা পাবে। সন্ধ্যাবেলায় তারা অস্কিলোনের বাড়ী-ঘরে শুয়ে থাকবে। তাদের ঈশ্বর সদাপ্রভু তাদের দেখাশোনা করবেন; তিনি তাদের অবস্থা ফিরাবেন। 8ইস্রায়েলের ঈশ্বর সর্বক্ষমতার অধিকারী সদাপ্রভু বলছেন, “আমি মোয়াবের অপমান করবার কথা ও অম্মোনীয়দের ঠাট্টা-বিদ্রূপ করবার কথা শুনেছি; তারা আমার লোকদের অপমান করেছে এবং তাদের দেশ দখল করবে বলে গর্ব করেছে। আমার জীবনের দিব্য যে, মোয়াব নিশ্চয়ই সদোমের মত আর অম্মোনীয়দের দেশ ঘমোরার মত হবে- তা আগাছার জায়গা, লবণের ক্ষেত ও চিরকালের পতিত জমি হয়ে থাকবে। আমার জাতির বেঁচে থাকা লোকেরা তাদের লুট করবে ও তাদের দেশ অধিকার করবে।” 10তাদের অহংকারের জন্য তারা এই ফল পাবে, কারণ তারা সর্বক্ষমতার অধিকারী সদাপ্রভুর লোকদের ঠাট্টা-বিদ্রূপ করেছে ও তাদের বিরুদ্ধে নিজেদের বড় করে তুলেছে। 11সদাপ্রভু তাদের কাছে ভীষণ ভয়ের কারণ হবেন; তিনি পৃথিবীর সমস্ত দেব-দেবতাকে শক্তিহীন করবেন। তখন দূর দেশের সব জাতির লোকেরা নিজের নিজের দেশে থেকে তাঁর উপাসনা করবে। 12সদাপ্রভু বলছেন, “হে কূশীয়েরা, তোমরাও আমার তলোয়ারের ঘায়ে মারা পড়বে।” 13সদাপ্রভু উত্তর দিকের বিরুদ্ধে হাত বাড়িয়ে আসিরিয়া ধ্বংস করবেন এবং নীনবীকে একেবারে জনশূন্য ও মরুভুমির মত শুকনা করে দেবেন। 14সেখানে গরু ও ভেড়ার পাল এবং সব জাতের প্রাণী শুয়ে থাকবে। মরু-পেঁচা ও ভূতুম পেঁচা তার থামগুলোর উপরে ঘুমাবে, আর জানলার মধ্য দিয়ে তাদের ডাক শোনা যাবে। ঘর-বাড়ীগুলো সব ধ্বংস হয়ে যাবে আর সেগুলোর এরস গাছের তক্তা লুট হয়ে যাবে। 15এটাই সেই নিশ্চিন্তে থাকা শহর যে নিরাপদে আছে। সে মনে মনে বলে, “আমিই আছি, আমি ছাড়া আর কেউ নেই।” সে কেমন ধ্বংস হয়ে গেল, বুনো পশুদের আশ্রয়স্থান হল! যারা তার পাশ দিয়ে যাবে তারা ঠাট্টা-বিদ্রূপ করবে এবং তাদের বুড়ো আংগুল দেখাবে।

will be added

X\