Zechariah 8

1পরে সর্বক্ষমতার অধিকারী সদাপ্রভুর বাক্য প্রকাশিত হল। তিনি বললেন, “সিয়োনের জন্য আমার অন্তরে খুব জ্বালা আছে; আমি তার জন্য আবেগে ভীষণভাবে জ্বলছি। 3আমি সিয়োনে ফিরে গিয়ে যিরূশালেমে বাস করব। তখন যিরূশালেমকে ‘সত্যের শহর’ এবং সর্বক্ষমতার অধিকারী সদাপ্রভুর পাহাড়কে ‘পবিত্র পাহাড়’ বলা হবে। 4পূর্ণবয়স্ক পুরুষ ও স্ত্রীলোকেরা আবার যিরূশালেমের খোলা জায়গায় বসে সময় কাটাবে আর বেশী বয়সের দরুন তাদের প্রত্যেকের হাতে লাঠি থাকবে। 5শহরের বিভিন্ন খোলা জায়গায় অনেক ছেলেমেয়ে খেলা করবে। 6এই সব যে ঘটবে তা এই জাতির বেঁচে থাকা লোকদের কাছে অসম্ভব বলে মনে হতে পারে, কিন্তু আমার কাছে তা অসম্ভব নয়। আমি সর্বক্ষমতার অধিকারী সদাপ্রভু এই কথা বলছি। 7আমি আরও বলছি যে, পূর্ব ও পশ্চিম দিক থেকে আমি আমার লোকদের উদ্ধার করব। 8যিরূশালেমে বাস করবার জন্য আমি তাদের ফিরিয়ে আনব। তারা আমারই লোক হবে এবং আমি তাদের ঈশ্বর হব; আমি তাদের প্রতি বিশ্বস্ত ও ন্যায়বান থাকব। 9“আমি সর্বক্ষমতার অধিকারী সদাপ্রভু বলছি, আমার ঘর তৈরীর জন্য ভিত্তি স্থাপন করবার সময় নবীরা সেই সব কথা বলেছিল, আর এখন তোমরা সেই একই কথা শুনতে পাচ্ছ; কাজেই তোমরা শক্তিশালী হও। 10সেই কাজ আরম্ভ করবার আগে কেউ মানুষের বেতন কিম্বা পশুর ভাড়া দিতে পারত না। শত্রুর দরুন কেউ নিরাপদে চলাফেরা করতে পারত না, কারণ আমিই প্রত্যেক জনকে তার প্রতিবেশীদের বিরুদ্ধে উস্‌কে দিয়েছিলাম। 11কিন্তু এখন আমি এই জাতির বেঁচে থাকা লোকদের সংগে আগেকার মত ব্যবহার করব না। 12এখন বীজ থেকে গাছ ভালভাবে বেড়ে উঠবে, আংগুর লতায় ফল ধরবে, মাটিতে ফসল জন্মাবে এবং আকাশ থেকে শিশির পড়বে। এই জাতির বেঁচে থাকা লোকেরা আমার দেওয়া অধিকার হিসাবে এই সব পাবে। 13হে যিহূদা ও ইস্রায়েল, সমস্ত জাতির লোকেরা আগে তোমাদের নাম অভিশাপ হিসাবে ব্যবহার করত, কিন্তু এখন আমি তোমাদের উদ্ধার করব আর তারা তোমাদের নাম আশীর্বাদ হিসাবে ব্যবহার করবে। তোমরা ভয় কোরো না, বরং শক্তিশালী হও। 14“আমি সর্বক্ষমতার অধিকারী সদাপ্রভু বলছি, তোমাদের পূর্বপুরুষেরা যখন আমাকে অসন্তুষ্ট করে তুলেছিল তখন আমি তাদের উপর বিপদ আনব বলে ঠিক করেছিলাম এবং তা ঘটিয়েও ছিলাম। 15কিন্তু এখন আমি আবার যিরূশালেম ও যিহূদার মংগল করব বলে ঠিক করেছি। তোমরা ভয় কোরো না। 16এই সব আদেশ তোমাদের মানতে হবে- তোমরা একে অন্যের কাছে সত্যি কথা বলবে এবং তোমাদের আদালতে ন্যায়বিচার করবে যাতে লোকদের মধ্যে শান্তি হয়; 17তোমরা কারও বিরুদ্ধে কুমতলব করবে না এবং মিথ্যা সাক্ষ্য দেবে না। আমি সদাপ্রভু এই সব ঘৃণা করি।” 18সর্বক্ষমতার অধিকারী সদাপ্রভু আবার আমাকে বললেন, 19“চতুর্থ, পঞ্চম, সপ্তম ও দশম মাসের উপবাস যিহূদার জন্য আনন্দের, খুশীর ও মংগলের উৎসব হয়ে উঠবে। কাজেই তোমরা সত্য ও শান্তি ভালবেসো। 20“এমন সময় আসবে যখন অনেক জাতি ও অনেক শহরের বাসিন্দারা যিরূশালেমে আসবে; 21এক শহরের বাসিন্দারা অন্য শহরে গিয়ে বলবে, ‘সর্বক্ষমতার অধিকারী সদাপ্রভুর আশীর্বাদ চাইবার জন্য ও তাঁর উপাসনা করবার জন্য চল, আমরা এখনই যাই।’ তখন অনেকেই বলবে, ‘আমিও যাব।’ 22আমার উপাসনা করবার জন্য ও আমার আশীর্বাদ চাইবার জন্য অনেক লোক ও শক্তিশালী জাতি যিরূশালেমে আসবে। 23সেই সময়ে নানা ভাষা ও জাতির দশজন লোক একজন যিহূদীর পোশাকের কিনারা ধরে বলবে, ‘চল, আমরা তোমাদের সংগে যাই, কারণ আমরা শুনেছি যে, ঈশ্বর তোমাদেরই সংগে আছেন।’ আমি সর্বক্ষমতার অধিকারী সদাপ্রভু এই কথা বলছি।”

will be added

X\