প্রকাশিত কালাম 6

1মেষ-শিশু যখন ঐ সাতটা সীলমোহরের প্রথমটা ভাংছিলেন তখন আমি চেয়ে দেখলাম; আর আমি সেই চারজন জীবন্ত প্রাণীর মধ্যে একজনকে বাজ পড়বার মত আওয়াজে বলতে শুনলাম, “এস।” তখন আমি একটা সাদা ঘোড়া দেখতে পেলাম। 2যিনি তার উপরে বসে ছিলেন তাঁর হাতে একটা ধনুক ছিল। তাঁকে একটা মুকুট দেওয়া হল আর তিনি জয়ীর মত বের হয়ে জয় করতে করতে চললেন। 3মেষ-শিশু যখন দ্বিতীয় সীলমোহর ভাংলেন তখন আমি দ্বিতীয় জীবন্ত প্রাণীকে বলতে শুনলাম, “এস।” 4তখন আগুনের মত লাল অন্য একটা ঘোড়া বের হয়ে আসল। যিনি সেই ঘোড়ার উপর বসে ছিলেন তাঁকে পৃথিবী থেকে শান্তি তুলে নেবার ক্ষমতা দেওয়া হল, যাতে লোকে একে অন্যকে মেরে ফেলে। তাঁকে একটা বড় তলোয়ারও দেওয়া হল। 5মেষ-শিশু যখন তৃতীয় সীলমোহর ভাংলেন তখন আমি তৃতীয় জীবন্ত প্রাণীকে বলতে শুনলাম, “এস।” তারপর আমি একটা কালো ঘোড়া দেখতে পেলাম। যিনি সেই ঘোড়াটার উপরে বসে ছিলেন তাঁর হাতে একটা দাঁড়িপাল্লা ছিল। 6আর আমি সেই চারজন জীবন্ত প্রাণীদের মাঝখানে কাউকে বলতে শুনলাম, “একজন দিনমজুরের এক দিনের আয়ে মাত্র এক সের গম বা তিন সের যব পাওয়া যায়। তেল আর আংগুর-রস তুমি নষ্ট কোরো না।” 7মেষ-শিশু যখন চতুর্থ সীলমোহর ভাংলেন তখন আমি চতুর্থ জীবন্ত প্রাণীকে বলতে শুনলাম, “এস।” 8তখন আমি একটা ফ্যাকাশে রংয়ের ঘোড়া দেখতে পেলাম। যিনি সেই ঘোড়ার উপরে বসে ছিলেন তাঁর নাম মৃত্যু; আর মৃতস্থানটি ঠিক তাঁর পিছনে পিছনে চলছিল। পৃথিবীর চার ভাগের এক ভাগের উপরে তাঁদের ক্ষমতা দেওয়া হল, যেন তাঁরা ছোরা, দুর্ভিক্ষ, মৃত্যু ও পৃথিবীর বুনো জন্তু দিয়ে লোকদের মেরে ফেলেন। 9যখন তিনি পঞ্চম সীলমোহর ভাংলেন তখন আমি একটা বেদীর নীচে এমন সব লোকের আত্মা দেখতে পেলাম যাদের ঈশ্বরের বাক্যের জন্য এবং সাক্ষ্য দেবার জন্য মেরে ফেলা হয়েছিল। 10তারা জোরে চিৎকার করে বলল, “হে পবিত্র ও সত্যময় প্রভু, যারা এই পৃথিবীর, তাদের বিচার করতে ও তাদের উপর আমাদের রক্তের শোধ নিতে তুমি আর কত দেরি করবে?” 11তখন তাদের প্রত্যেককে একটা করে সাদা পোশাক দেওয়া হল আর বলা হল, তাদের সহদাস ও ভাইদের, যাদের তাদেরই মত করে মেরে ফেলা হবে তাদের সংখ্যা পূর্ণ না হওয়া পর্যন্ত তারা যেন আরও কিছুকাল অপেক্ষা করে। 12তারপর আমি দেখলাম, তিনি যখন ষষ্ঠ সীলমোহর ভাংলেন তখন ভীষণ ভূমিকম্প হল। সূর্য একেবারে কালো হয়ে গেল আর গোটা চাঁদটাই রক্তের মত লাল হয়ে উঠল। 13জোর বাতাস বইলে যেমন ডুমুর গাছ থেকে ডুমুর অসময়ে পড়ে যায় ঠিক তেমনি করে আকাশের তারাগুলো পৃথিবীর উপর খসে পড়ল। 14গুটিয়ে রাখা কাগজের মতই আকাশ গুটিয়ে গেল; আর প্রত্যেকটা পাহাড় ও দ্বীপ নিজের নিজের জায়গা থেকে সরে গেল। 15পৃথিবীর সমস্ত রাজা ও প্রধান লোক, সেনাপতি, ধনী ও শক্তিশালী লোক এবং প্রত্যেক দাস ও স্বাধীন লোক পাহাড়ের গুহায় গুহায় এবং পাথরের আড়ালে আড়ালে নিজেদের লুকিয়ে ফেলল। 16তারা পাহাড় ও পাথরগুলোকে বলল, “আমাদের উপরে পড় এবং যিনি সেই সিংহাসনে বসে আছেন তাঁর মুখের সামনে থেকে এবং মেষ-শিশুর ক্রোধ থেকে আমাদের লুকিয়ে রাখ, 17কারণ তাঁদের ক্রোধ প্রকাশের সেই মহান দিন এসে পড়েছে, আর কে তার সামনে দাঁড়িয়ে থাকতে পারে?”

will be added

X\