Numbers 28

1সদাপ্রভু মোশিকে ইস্রায়েলীয়দের এই কথা বলতে বললেন, “আমাকে খুশী করবার গন্ধ হিসাবে আমার উদ্দেশে আগুনে-করা উৎসর্গের জন্য তোমরা নির্দিষ্ট সময়ে আমার খাবার নিয়ে আসতে ভুল কোরো না।” 3তিনি তাদের এই কথাও বলতে বললেন, “আগুনে-করা উৎসর্গের জন্য সদাপ্রভুর সামনে প্রত্যেক দিনের নিয়মিত পোড়ানো-উৎসর্গের জন্য তোমাদের এক বছরের দু’টা খুঁতহীন বাচ্চা-ভেড়া আনতে হবে। 4তার একটা বাচ্চা সকালে উৎসর্গ করবে ও অন্যটা করবে বেলা ডুবে গেলে পর। 5এর সংগে থাকবে শস্য-উৎসর্গের জন্য এক কেজি আটশো গ্রাম মিহি ময়দা। এই ময়দার সংগে প্রায় এক লিটার জলপাই-ছেঁচা তেল মিশিয়ে আনতে হবে। 6এটা সেই নিয়মিত পোড়ানো-উৎসর্গ যা সিনাই পাহাড়ে স্থাপন করা হয়েছিল। এটা সদাপ্রভুর উদ্দেশে আগুনে-করা একটা উৎসর্গ যার গন্ধে সদাপ্রভু খুশী হন। 7প্রত্যেকটা ভেড়ার সংগে প্রায় এক লিটার মদ দিয়ে ঢালন-উৎসর্গের অনুষ্ঠান করতে হবে। পবিত্র তাম্বুর উঠানে সদাপ্রভুর উদ্দেশে এই ঢালন-উৎসর্গের জিনিস ঢেলে দিতে হবে। 8ভেড়ার অন্য বাচ্চাটা বেলা ডুবে গেলে পর উৎসর্গ করতে হবে। তার সংগে থাকবে সকালবেলার মত শস্য-উৎসর্গ ও ঢালন-উৎসর্গ। এটা একটা আগুনে-করা উৎসর্গ যার গন্ধে সদাপ্রভু খুশী হন। 9“বিশ্রামবারে দু’টা এক বছরের খুঁতহীন ভেড়ার বাচ্চা উৎসর্গ করতে হবে। তার সংগে থাকবে তার সংগেকার ঢালন-উৎসর্গের জিনিস এবং শস্য-উৎসর্গের জন্য তেলের ময়ান দেওয়া তিন কেজি ছ’শো গ্রাম মিহি ময়দা। 10নিয়মিত পোড়ানো-উৎসর্গ এবং তার সংগেকার ঢালন-উৎসর্গ ছাড়াও প্রত্যেক বিশ্রামবারে এই পোড়ানো-উৎসর্গের অনুষ্ঠান করতে হবে। 11“প্রত্যেক মাসের প্রথম দিনে সদাপ্রভুর উদ্দেশে পোড়ানো-উৎসর্গের জন্য দু’টা ষাঁড়, একটা ভেড়া এবং এক বছরের সাতটা বাচ্চা-ভেড়া উৎসর্গ করতে হবে। সেগুলোর প্রত্যেকটাকেই খুঁতহীন হতে হবে। 12শস্য-উৎসর্গের জন্য প্রত্যেকটা ষাঁড়ের সংগে তেলের ময়ান দেওয়া পাঁচ কেজি চারশো গ্রাম মিহি ময়দা দিতে হবে; ভেড়াটার সংগে দিতে হবে তিন কেজি ছ’শো গ্রাম এবং প্রত্যেকটা বাচ্চা-ভেড়ার সংগে দিতে হবে এক কেজি আটশো গ্রাম। এটা পোড়ানো-উৎসর্গ, সদাপ্রভুর উদ্দেশে আগুনে-করা একটা উৎসর্গ যার গন্ধে সদাপ্রভু খুশী হন। 14ঢালন-উৎসর্গের জন্য প্রত্যেকটা ষাঁড়ের সংগে পৌনে দুই লিটার আংগুর-রস দিতে হবে; ভেড়াটার সংগে দিতে হবে সোয়া লিটার এবং প্রত্যেকটা বাচ্চা-ভেড়ার সংগে দিতে হবে প্রায় এক লিটার। এটা হল মাসিক পোড়ানো-উৎসর্গ। বছরের প্রত্যেক মাসে এটা করতে হবে। 15নিয়মিত পোড়ানো-উৎসর্গ এবং তার সংগেকার ঢালন-উৎসর্গ ছাড়া একটা পাঁঠা দিয়ে পাপ-উৎসর্গের অনুষ্ঠান করতে হবে। 16“বছরের প্রথম মাসের চৌদ্দ তারিখে সদাপ্রভুর উদ্দেশে উদ্ধার-পর্ব পালন করতে হবে। 17সেই মাসের পনেরো তারিখে একটা উৎসব করতে হবে। তখন সাত দিন ধরে খামিহীন রুটি খেতে হবে। 18প্রথম দিনে একটি পবিত্র মিলন-সভা করতে হবে এবং সেই দিন তোমাদের কোন পরিশ্রমের কাজ করা চলবে না। 19সেই দিন সদাপ্রভুর উদ্দেশে আগুনে-করা উৎসর্গ হিসাবে দু’টা ষাঁড়, একটা ভেড়া এবং সাতটা এক বছরের বাচ্চা-ভেড়া দিয়ে পোড়ানো-উৎসর্গের অনুষ্ঠান করতে হবে। সেগুলোর প্রত্যেকটাকে খুঁতহীন হতে হবে। 20শস্য-উৎসর্গের জন্য প্রত্যেকটা ষাঁড়ের সংগে তেলের ময়ান দেওয়া পাঁচ কেজি চারশো গ্রাম মিহি ময়দা দিতে হবে; ভেড়াটার সংগে দিতে হবে তিন কেজি ছ’শো গ্রাম এবং প্রত্যেকটা বাচ্চা-ভেড়ার সংগে দিতে হবে এক কেজি আটশো গ্রাম। 22এগুলোর সংগে তোমাদের পাপ ঢাকা দেবার উদ্দেশ্যে পাপ-উৎসর্গের জন্য একটি পাঁঠাও আনতে হবে। 23সকালবেলার নিয়মিত পোড়ানো-উৎসর্গ ছাড়া এই সব উৎসর্গও করতে হবে। 24এইভাবে সাত দিনের প্রত্যেক দিন সদাপ্রভুকে খুশী করবার গন্ধ হিসাবে এই সব খাবার দিয়ে আগুনে-করা উৎসর্গ করতে হবে। নিয়মিত যে পোড়ানো-উৎসর্গ এবং তার সংগেকার ঢালন-উৎসর্গ রয়েছে তার উপর এটাও করতে হবে। 25সপ্তম দিনে একটি পবিত্র মিলন-সভা করবে এবং সেই দিন তোমাদের কোন পরিশ্রমের কাজ করা চলবে না। 26“সাত সপ্তাহের পর্বের দিনে, অর্থাৎ প্রথমে তোলা ফসল উৎসর্গ করবার দিনে যখন তোমরা সদাপ্রভুর উদ্দেশে নতুন ফসল উৎসর্গ করবে সেই দিন তোমাদের একটি পবিত্র মিলন-সভা করতে হবে এবং সেই দিন তোমাদের কোন পরিশ্রমের কাজ করা চলবে না। 27সেই দিন সদাপ্রভুকে খুশী করবার গন্ধ হিসাবে তোমাদের দু’টা ষাঁড়, একটা ভেড়া এবং সাতটা এক বছরের বাচ্চা-ভেড়া দিয়ে একটা পোড়ানো-উৎসর্গের অনুষ্ঠান করতে হবে। 28শস্য-উৎসর্গের জন্য প্রত্যেকটা ষাঁড়ের সংগে তেলের ময়ান দেওয়া পাঁচ কেজি চারশো গ্রাম মিহি ময়দা দিতে হবে; ভেড়াটার সংগে দিতে হবে তিন কেজি ছ’শো গ্রাম এবং প্রত্যেকটা বাচ্চা-ভেড়ার সংগে দিতে হবে এক কেজি আটশো গ্রাম। 30পাপ ঢাকা দেবার জন্য এগুলোর সংগে তোমাদের একটা পাঁঠাও আনতে হবে। 31এই সব উৎসর্গ এবং তার সংগেকার ঢালন-উৎসর্গের সংগে নিয়মিত পোড়ানো-উৎসর্গ ও তার সংগেকার শস্য-উৎসর্গের অনুষ্ঠানও করতে হবে। পশুগুলোর গায়ে যেন কোন খুঁত না থাকে।

will be added

X\