Numbers 27

1সলফাদের মেয়েরা ছিল যোষেফের ছেলে মনঃশির বংশের। মনঃশির ছেলের নাম মাখীর, মাখীরের ছেলের নাম গিলিয়দ, গিলিয়দের ছেলের নাম হেফর এবং হেফরের ছেলের নাম সলফাদ। সলফাদের মেয়েদের নাম হল মহলা, নোয়া, হগ্‌লা, মিল্কা ও তির্সা। 2এই মেয়েরা মিলন-তাম্বুতে ঢুকবার পথে গিয়ে মোশি আর পুরোহিত ইলিয়াসর এবং সমস্ত নেতা ও ইস্রায়েলীয়দের সামনে দাঁড়িয়ে বলল, 3“আমাদের বাবা মরু-এলাকায় মারা গেছেন। কোরহের যে সব লোকেরা সদাপ্রভুর বিরুদ্ধে দল পাকিয়েছিল তিনি তাদের মধ্যে ছিলেন না; তিনি নিজের পাপেই মারা গেছেন। তাঁর কোন ছেলে নেই, 4কিন্তু তাই বলে কেন আমাদের বাবার নাম তাঁর বংশ থেকে মুছে যাবে? বাবার বংশের লোকদের সংগে আমাদের সম্পত্তির অধিকার দিন।” 5তখন মোশি তাদের এই ব্যাপারটা সদাপ্রভুর সামনে তুলে ধরলেন। 6এর উত্তরে সদাপ্রভু তাঁকে বললেন, 7“সলফাদের মেয়েরা ঠিক কথাই বলেছে। তাদের বাবার বংশের লোকদের সংগে তাদেরও নিশ্চয়ই সম্পত্তির অধিকার তোমাকে দিতে হবে। তারা যাতে তাদের বাবার সম্পত্তি পায় তা তোমাকে দেখতে হবে। 8তুমি ইস্রায়েলীয়দের বল যদি কেউ ছেলে না রেখে মারা যায় তবে তার সম্পত্তির অধিকার তার মেয়ে পাবে। 9যদি তার মেয়ে না থাকে তবে তার ভাইয়েরা তার সম্পত্তির অধিকারী হবে। 10যদি তার ভাই না থাকে তবে সম্পত্তির অধিকার তার বাবার ভাইয়েরা পাবে। 11যদি বাবার কোন ভাই না থাকে তবে তার বংশের সবচেয়ে নিকট জনকে সেই সম্পত্তির অধিকার দিতে হবে। সেই সম্পত্তি সে-ই পাবে। মোশিকে দেওয়া সদাপ্রভুর আদেশ অনুসারে এটা হবে ইস্রায়েলীয়দের আইনের একটা ধারা।” 12এর পর সদাপ্রভু মোশিকে বললেন, “তুমি অবারীম পাহাড়শ্রেণীর মধ্যেকার এই পাহাড়টায় উঠে যে দেশ আমি ইস্রায়েলীয়দের দিয়েছি সেটা দেখে নাও। 13তোমার ভাই হারোণ যেমন তার পূর্বপুরুষদের কাছে চলে গেছে দেশটা দেখবার পর তোমাকেও তেমনি তোমার পূর্বপুরুষদের কাছে চলে যেতে হবে। 14এর কারণ হল, সীন মরু-এলাকায় ইস্রায়েলীয়েরা যখন জলের জন্য বিদ্রোহ করেছিল তখন ইস্রায়েলীয়দের সামনে আমাকে পবিত্র বলে মান্য করবার আদেশ তোমরা অমান্য করেছিলে।” এটা সীন মরু-এলাকায় কাদেশের মরীবার জলের কথা। 15এই কথা শুনে মোশি সদাপ্রভুকে বললেন, “সদাপ্রভু, যিনি সমস্ত মানুষের প্রাণদাতা ঈশ্বর, তিনিই ইস্রায়েলীয়দের উপরে এমন একজন লোককে নিযুক্ত করুন, যে নেতা হয়ে সমস্ত কিছুতে এই লোকদের পরিচালনা করতে পারবে। তাতে সদাপ্রভুর লোকেরা রাখালহীন ভেড়ার মত হয়ে পড়বে না।” 18এর উত্তরে সদাপ্রভু মোশিকে বললেন, “নূনের ছেলে যিহোশূয়ের মধ্যে ঈশ্বরের আত্মা আছেন। তুমি তাকে এনে তার উপর তোমার হাত রাখ। 19তুমি তাকে পুরোহিত ইলিয়াসর ও ইস্রায়েলীয়দের সামনে উপস্থিত করে তাদের সামনেই তাকে কাজের ভার দাও। 20তোমাকে যে ক্ষমতা দেওয়া হয়েছে তার কিছুটা তুমি তার হাতে দাও যাতে ইস্রায়েলীয়েরা সবাই তাকে মেনে চলে। 21তাকে পুরোহিত ইলিয়াসরের কাছে যেতে হবে, আর ইলিয়াসর তার হয়ে ঊরীমের সাহায্যে সদাপ্রভুর নির্দেশ জেনে নেবে। ইলিয়াসরের আদেশেই তাকে এবং ইস্রায়েলীয়দের অন্য সবাইকে চলতে হবে।” 22মোশি ঈশ্বরের আদেশ মতই কাজ করলেন। তিনি যিহোশূয়কে পুরোহিত ইলিয়াসর ও ইস্রায়েলীয়দের সামনে উপস্থিত করলেন। 23তারপর সদাপ্রভুর নির্দেশ মত তাঁর উপর হাত রেখে তাঁকে কাজের ভার দিলেন।

will be added

X\