মথি 23

1পরে যীশু লোকদের কাছে ও তাঁর শিষ্যদের কাছে বললেন, 2“আইন- কানুন শিক্ষা দেবার ব্যাপারে ধর্ম-শিক্ষকেরা ও ফরীশীরা মোশির জায়গায় আছেন। 3এইজন্য তাঁরা যা কিছু করতে বলেন তা কোরো এবং যা পালন করবার আদেশ দেন তা পালন কোরো। কিন্তু তাঁরা যা করেন তোমরা তা কোরো না, কারণ তাঁরা মুখে যা বলেন কাজে তা করেন না। 4তাঁরা ভারী ভারী বোঝা বেঁধে মানুষের কাঁধে চাপিয়ে দেন, কিন্তু সেগুলো সরাবার জন্য নিজেরা একটা আংগুলও নাড়াতে চান না। 5লোকদের দেখাবার জন্যই তাঁরা সব কাজ করেন। পবিত্র শাস্ত্রের পদ-লেখা তাবিজ তাঁরা বড় করে তৈরী করেন আর নিজেদের ধার্মিক দেখাবার জন্য চাদরের কোণায় কোণায় লম্বা থোপ্‌না লাগান। 6ভোজের সময় সম্মানের জায়গায় এবং সমাজ-ঘরে প্রধান প্রধান আসনে তাঁরা বসতে ভালবাসেন। 7তাঁরা হাটে-বাজারে সম্মান খুঁজে বেড়ান আর চান যেন লোকেরা তাঁদের গুরু বলে ডাকে। 8“কেউ তোমাদের গুরু বলে ডাকুক তা চেয়ো না, কারণ তোমাদের গুরু বলতে কেবল একজনই আছেন, আর তোমরা সবাই ভাই ভাই। 9এই পৃথিবীতে কাউকেই পিতা বলে ডেকো না, কারণ তোমাদের একজনই পিতা আর তিনি স্বর্গে আছেন। 10কেউ তোমাদের নেতা বলে ডাকুক তা চেয়ো না, কারণ তোমাদের নেতা বলতে কেবল একজনই আছেন, তিনি মশীহ। 11তোমাদের মধ্যে যে সবচেয়ে বড় সে তোমাদের সেবাকারী হোক। 12যে কেউ নিজেকে উঁচু করে তাকে নীচু করা হবে এবং যে কেউ নিজেকে নীচু করে তাকে উঁচু করা হবে। 13“ভণ্ড ধর্ম-শিক্ষক ও ফরীশীরা, ধিক্‌ আপনাদের! আপনারা লোকদের সামনে স্বর্গ-রাজ্যের দরজা বন্ধ করে রাখেন। তাতে নিজেরাও ঢোকেন না আর যারা ঢুকতে চেষ্টা করছে তাদেরও ঢুকতে দেন না। 14“ভণ্ড ধর্ম-শিক্ষক ও ফরীশীরা, ধিক্‌ আপনাদের! এক দিকে আপনারা লোকদের দেখাবার জন্য লম্বা লম্বা প্রার্থনা করেন, অন্য দিকে বিধবাদের সম্পত্তি দখল করেন। এইজন্য আপনাদের অনেক বেশী শাস্তি হবে। 15“ভণ্ড ধর্ম-শিক্ষক ও ফরীশীরা, ধিক্‌ আপনাদের! একটি মাত্র লোককে আপনাদের ধর্ম-মতে আনবার জন্য আপনারা দুনিয়ার কোথায় না যান। আর সে যখন আপনাদের ধর্ম-মতে আসে তখন আপনারা নিজেদের চেয়ে তাকে অনেক বেশী করে নরকের উপযুক্ত করে তোলেন। 16“ধিক্‌ আপনাদের! আপনারা নিজেরা অন্ধ অথচ অন্যদের পথ দেখান। আপনারা বলে থাকেন, উপাসনা-ঘরের নামে কেউ শপথ করলে তাতে কিছু হয় না, কিন্তু যদি কেউ উপাসনা-ঘরের সোনার নামে শপথ করে তবে সে সেই শপথে বাঁধা পড়ে। 17মূর্খ ও অন্ধের দল, কোন্‌টা বড়? সোনা, না সেই উপাসনা-ঘর যা সেই সোনাকে ঈশ্বরের জন্য আলাদা করে রাখে? 18আপনারা আবার এই কথাও বলে থাকেন, বেদীর নামে কেউ শপথ করলে কিছুই হয় না, কিন্তু যদি কেউ সেই বেদীর উপরে যে দান আছে তার নামে শপথ করে তবে সে সেই শপথে বাঁধা পড়ে। 19অন্ধের দল, কোন্‌টা বড়? সেই দান, না সেই বেদী যা সেই দানকে ঈশ্বরের জন্য আলাদা করে রাখে? 20এইজন্য বেদীর নামে যে শপথ করে সে সেই বেদী এবং তার উপরের সব কিছুর নামেই শপথ করে। 21আর উপাসনা-ঘরের নামে যে শপথ করে সে উপাসনা-ঘর এবং তার ভিতরে যিনি থাকেন তাঁরই নামে শপথ করে। 22যে স্বর্গের নামে শপথ করে সে ঈশ্বরের সিংহাসন এবং যিনি তার উপর বসে আছেন তাঁরই নামে শপথ করে। 23“ভণ্ড ধর্ম-শিক্ষক ও ফরীশীরা, ধিক্‌ আপনাদের! আপনারা পুদিনা, মৌরি আর জিরার দশ ভাগের এক ভাগ ঈশ্বরকে ঠিকমতই দিয়ে থাকেন; কিন্তু ন্যায়, দয়া এবং বিশ্বস্ততা, যা মোশির আইন-কানুনের আরও দরকারী বিষয় তা আপনারা বাদ দিয়েছেন। আগেরগুলো পালন করবার সংগে সংগে পরেরগুলোও পালন করা আপনাদের উচিত। 24আপনারা নিজেরা অন্ধ অথচ অন্যদের পথ দেখান। একটা ছোট মাছিও আপনারা ছাঁকেন অথচ উট গিলে ফেলেন। 25“ভণ্ড ধর্ম-শিক্ষক ও ফরীশীরা, ধিক্‌ আপনাদের! আপনারা থালা-বাটির বাইরের দিকটা পরিষ্কার করে থাকেন, কিন্তু সেগুলো জুলুমের জিনিস আর লোভের ফল দিয়ে পূর্ণ। 26অন্ধ ফরীশীরা, আগে সেগুলোর ভিতরের দিকটা পরিষ্কার করুন, তাতে তার বাইরের দিকটাও পরিষ্কার হবে। 27“ভণ্ড ধর্ম-শিক্ষক ও ফরীশীরা, ধিক্‌ আপনাদের! আপনারা চুনকাম করা কবরের মত, যার বাইরের দিকটা সুন্দর কিন্তু ভিতরটা মরা মানুষের হাড়- গোড় ও সব রকম ময়লায় ভরা। 28ঠিক সেইভাবে, বাইরে আপনারা লোকদের চোখে ধার্মিক কিন্তু ভিতরে ভণ্ডামী ও পাপে পূর্ণ। 29“ভণ্ড ধর্ম-শিক্ষক ও ফরীশীরা, ধিক্‌ আপনাদের! আপনারা নবীদের কবর নুতন করে গাঁথেন এবং ঈশ্বরভক্ত লোকদের কবর সাজান। 30আপনারা বলেন, ‘আমরা যদি আমাদের পূর্বপুরুষদের সময় বেঁচে থাকতাম তবে নবীদের খুন করবার জন্য তাঁদের সংগে যোগ দিতাম না।’ 31এতে আপনারা নিজেদের বিরুদ্ধে এই সাক্ষ্য দিচ্ছেন যে, নবীদের যারা খুন করেছে আপনারা তাদেরই বংশধর। 32তাহলে আপনাদের পূর্বপুরুষেরা যা আরম্ভ করে গেছেন তার বাকী অংশ আপনারা শেষ করুন। 33“সাপের দল আর সাপের বংশধরেরা! কেমন করে আপনারা নরকের শাস্তি থেকে রক্ষা পাবেন? 34এইজন্যই আমি আপনাদের কাছে নবী, জ্ঞানী লোক এবং ধর্ম-শিক্ষকদের পাঠাচ্ছি। আপনারা তাঁদের মধ্যে কয়েকজনকে খুন করবেন ও কয়েকজনকে ক্রুশে দেবেন। কয়েকজনকে আপনাদের সমাজ-ঘরে চাবুক মারবেন এবং এক গ্রাম থেকে অন্য গ্রামে তাড়া করে বেড়াবেন। 35এইজন্য নির্দোষ হেবলের খুন থেকে আরম্ভ করে আপনারা যে বরখিয়ের ছেলে সখরিয়কে পবিত্র স্থান আর বেদীর মাঝখানে খুন করেছিলেন, সেই সখরিয়ের খুন পর্যন্ত পৃথিবীতে যত নির্দোষ লোক খুন হয়েছে আপনারা সেই সমস্ত রক্তের দায়ী হবেন। 36আমি আপনাদের সত্যিই বলছি, এই কালের লোকেরাই সেই সমস্ত রক্তের দায়ী হবে। 37“যিরূশালেম! হায় যিরূশালেম! তুমি নবীদের খুন করে থাক এবং তোমার কাছে যাদের পাঠানো হয় তাদের পাথর মেরে থাক। মুরগী যেমন বাচ্চাদের তার ডানার নীচে জড়ো করে তেমনি আমি তোমার লোকদের কতবার আমার কাছে জড়ো করতে চেয়েছি, কিন্তু তারা রাজী হয় নি। 38হে যিরূশালেমের লোকেরা, তোমাদের বাড়ী তোমাদের সামনে খালি হয়ে পড়ে থাকবে। 39আমি তোমাদের বলছি, যে পর্যন্ত না তোমরা বলবে, ‘যিনি প্রভুর নামে আসছেন তাঁর গৌরব হোক,’ সেই পর্যন্ত আর তোমরা আমাকে দেখতে পাবে না।”

will be added

X\