Job 24

1“সর্বশক্তিমান কেন বিচারের জন্য সময় ঠিক করেন না? যারা তাঁকে জানে তারা কেন সেই দিন দেখতে পায় না? 2লোকে সীমার পাথর সরিয়ে দেয়; তারা ভেড়ার পাল চুরি করে এবং তা চরায়। 3তারা অনাথদের গাধা নিয়ে যায় আর বিধবার গরু বন্ধক রাখে। 4তারা পথ থেকে অভাবীদের তাড়িয়ে দেয়; তাদের দরুন দেশের সব গরীবেরা লুকিয়ে থাকে। 5গরীবেরা মরুভূমির বুনো গাধার মত খাবারের খোঁজ করে; মরু-এলাকা তাদের ছেলেমেয়েদের খাবার যোগায়। 6তারা মাঠে গিয়ে পশুদের খাবার নিজেদের জন্য যোগাড় করে আর দুষ্টদের আংগুর ক্ষেত থেকে পড়ে থাকা আংগুর কুড়ায়। 7কাপড়ের অভাবে তারা উলংগ হয়ে রাত কাটায়; শীতকালে গায়ে দেবার জন্য তাদের কিছুই থাকে না। 8তারা পাহাড়ী বৃষ্টিতে ভেজে আর আশ্রয়ের অভাবে পাথরের কাছে জড়সড় হয়। 9অনাথ শিশুকে সেই দুষ্টেরা মায়ের বুক থেকে কেড়ে নেয় আর ঋণের জন্য গরীবের সন্তানকে বন্ধক রাখে। 10কাপড়ের অভাবে গরীবেরা উলংগ হয়ে ঘুরে বেড়ায়; তারা খিদে নিয়েই শস্যের আঁটি বহন করে। 11তারা বাগানে জাঁতা দিয়ে জলপাইয়ের তেল বের করে; তারা পিপাসা নিয়ে আংগুর মাড়াই করে। 12শহরের মধ্যে মানুষের কোঁকানি শোনা যায়, আহত লোকেরা সাহায্যের জন্য চিৎকার করে; কিন্তু ঈশ্বর তাদের কান্নায় মনোযোগ দেন না। 13“অনেকে আলোর বির€দ্ধে বিদ্রোহ করে; তারা আলো সম্বন্ধে জানে না কিম্বা তার পথেও থাকে না। 14খুনী খুব ভোরে উঠে গরীব আর অভাবীদের মেরে ফেলে, আর রাতের বেলায় সে চোর হয়ে চুরি করে। 15ব্যভিচারীর চোখ সন্ধ্যার জন্য অপেক্ষা করে; সে তার মুখ ঢেকে রেখে ভাবে কারও চোখ তার উপর পড়বে না। 16অন্ধকার হলে লোকে ঘরে সিঁধ কাটে, কিন্তু দিনের বেলায় তারা লুকিয়ে থাকে; আলোর সংগে তাদের কোন সমপর্ক থাকে না। 17তাদের জন্য সকালবেলা গাঢ় অন্ধকারের মত; অন্ধকারের ভয়ংকরতার সংগে তাদের বন্ধুত্ব আছে। 18“তারা জলের উপরকার ফেনার মত; তাদের ভাগের জমি অভিশপ্ত, কাজেই তারা কেউ আংগুর ক্ষেতে যায় না। 19গরম আর খরা যেমন বরফ-গলা জল গ্রাস করে, মৃতস্থানও তেমনি করে পাপীদের গ্রাস করে। 20মা তাদের ভুলে যায়, পোকারা তাদের দেহ খেয়ে ফেলে; মন্দ লোকদের কেউ মনে রাখে না, তারা গাছের মত ভেংগে পড়ে। 21তারা বন্ধ্যা স্ত্রীলোককে গ্রাস করে আর বিধবাদের দয়া করে না। 22কিন্তু ঈশ্বর তাঁর শক্তিতে সেই বলবানদের টেনে নামান; তারা প্রতিষ্ঠিত হলেও তাদের জীবনের নিশ্চয়তা নেই। 23তিনি দুষ্টদের নিরাপদে বিশ্রাম দিতে পারেন, কিন্তু তাঁর চোখ থাকে তাদের পথের দিকে। 24কিছু সময়ের জন্য তাদের উন্নতি হয়, তারপর তারা আর থাকে না। তাদের নীচু করা হয়, ঘাসের মত তারা ্নান হয়ে যায়, আর শস্যের শীষের মতই তারা শুকিয়ে যায়। 25যদি তা না-ই হয় তবে কে আমার কথা মিথ্যা প্রমাণ করতে পারবে? আমার কথা যে সত্যি নয় তা কে বলতে পারবে?”

will be added

X\