Jeremiah 9

1হায়, আমার মাথাটা যদি জলের ঝরণা হত, আর আমার চোখ হত জলের ফোয়ারা! তাহলে আমার জাতির যে লোকদের মেরে ফেলা হয়েছে তাদের জন্য আমি দিনরাত কাঁদতাম। 2হায়, মরু-এলাকায় যাত্রীদের থাকবার জায়গার মত আমার যদি একটা জায়গা থাকত! তাহলে আমার লোকদের ছেড়ে আমি সেখানে চলে যেতে পারতাম, কারণ তারা সবাই ব্যভিচারী এবং বিশ্বাসঘাতকদের দল। 3সদাপ্রভু বলছেন, “তারা মিথ্যার তীর ছুঁড়বার জন্য তাদের ধনুকের মত জিভ্‌কে প্রস্তুত রেখেছে; দেশে সত্যের উপরে মিথ্যা জয়লাভ করে। তারা পাপের উপরে পাপ করতে থাকে। তারা আমাকে তাদের ঈশ্বর বলে স্বীকার করে না। 4তারা প্রত্যেকে বন্ধুদের থেকে সাবধান হোক আর নিজের ভাইদের বিশ্বাস না করুক, কারণ প্রত্যেক ভাই ঠকায় আর প্রত্যেক বন্ধু নিন্দা করে। 5বন্ধু বন্ধুকে ঠকায় আর কেউ সত্যি কথা বলে না। তারা তাদের জিভ্‌কে মিথ্যা কথা বলতে শিখিয়েছে; পাপ করে করে তারা নিজেদের ক্লান্ত করেছে। 6তুমি ছলনার মাঝখানে বাস করছ। তোমার লোকেরা ছলনায় পূর্ণ; তারা আমার কাছে নিজেদের সঁপে দেয় না।” 7কাজেই সর্বক্ষমতার অধিকারী সদাপ্রভু বলছেন, “দেখ, আমি তাদের খাদ বের করে যাচাই করব, কারণ আমার লোকদের নিয়ে আমি আর কি করতে পারি? 8তাদের জিভ্‌ ভয়ংকর তীরের মত; তা ছলনার কথা বলে। প্র্রত্যেকে মুখ দিয়ে প্রতিবেশীর সংগে মিষ্টি কথা বলে কিন্তু অন্তরের মধ্যে তার বিরুদ্ধে ফাঁদ পাতে। 9আমি কি এর জন্য তাদের শাস্তি দেব না? এই রকম জাতির উপর কি আমি নিজেই প্রতিশোধ নেব না?” 10পাহাড়গুলোর জন্য আমি কাঁদব ও বিলাপ করব আর বিলাপ করব মরু-এলাকার পশু চরাবার জায়গাগুলোর জন্য। সেগুলো ধ্বংস হয়ে গেছে, সেখানে কেউ আসা-যাওয়া করে না। পশুপালের ডাক আর শোনা যায় না। আকাশের পাখীরা পালিয়ে গেছে আর জীবজন্তুরা চলে গেছে। 11সদাপ্রভু বলছেন, “আমি যিরূশালেমকে একটা ধ্বংসের ঢিবি ও শিয়ালদের বাসস্থান করব। আমি যিহূদার শহরগুলোকে এমন ধ্বংসস্থান করব যে, তাতে আর কেউ বাস করতে পারবে না।” 12কোন্‌ লোক এমন জ্ঞানী যে, এই কথা বুঝতে পারে? কে সদাপ্রভুর কাছে শুনে তা অন্যদের জানাতে পারে? কেন দেশটা ধ্বংস হয়ে মরুভূমির মত এমন পোড়ো জমি হয়ে রয়েছে যে, কেউ তা পার হয়ে যায় না? 13সদাপ্রভু বলছেন, “তার কারণ হল, আমি যে আইন-কানুন তাদের দিয়েছিলাম তা তারা ত্যাগ করেছে; তারা আমার বাধ্য হয় নি কিম্বা আমার কথাও মেনে চলে নি। 14তার বদলে তারা তাদের অন্তরের একগুঁয়েমি অনুসারে চলেছে; তাদের পিতাদের শিক্ষামত তারা বাল দেবতার পিছনে চলেছে। 15সেইজন্য আমি ইস্রায়েলের ঈশ্বর সর্বক্ষমতার অধিকারী সদাপ্রভু এই কথা বলছি, ‘দেখ, আমি এই লোকদের তেতো খাবার ও বিষাক্ত জল খেতে বাধ্য করব। 16আমি তাদের এমন সব জাতির মধ্যে ছড়িয়ে দেব যাদের তারা জানে না কিম্বা তাদের পূর্বপুরুষেরাও জানত না। তাদের ধ্বংস না করা পর্যন্ত আমি যুদ্ধ পাঠিয়ে তাদের পিছনে তাড়া করব।’ ” 17সর্বক্ষমতার অধিকারী সদাপ্রভু বলছেন, “তোমরা এখন ভেবে দেখ। বিলাপকারী স্ত্রীলোকদের ডেকে আন; যারা এই কাজে পাকা তাদের ডাকতে লোক পাঠাও।” 18তারা তাড়াতাড়ি এসে আমাদের জন্য বিলাপ করুক যে পর্যন্ত না আমাদের চোখ জলে ভেসে যায় আর চোখের পাতার কাছ থেকে জলের ধারা বয়ে যায়। 19সিয়োন থেকে এই বিলাপের কথা শোনা যাচ্ছে, “আমরা কিভাবে ধ্বংস হয়ে গেলাম! কিভাবে এতখানি লজ্জিত হলাম! আমাদের বাড়ীগুলো ধ্বংস হয়ে গেছে, কাজেই আমাদের দেশ ছেড়ে যেতে হবে।” 20এখন হে স্ত্রীলোকেরা, সদাপ্রভুর বাক্য শোন; তাঁর মুখের কথা শুনবার জন্য তোমাদের কান খোলা রাখ। কেমন করে বিলাপ করতে হয় তা নিজের নিজের মেয়েদের শিক্ষা দাও, আর বিলাপের গান করতে অন্যদের শিক্ষা দাও। 21মৃত্যু আমাদের জানালা দিয়ে উঠে আমাদের দুর্গগুলোর মধ্যে ঢুকেছে; তা রাস্তায় রাস্তায় ছেলেমেয়েদের শেষ করে দিয়েছে আর শহর-চক থেকে শেষ করে দিয়েছে যুবকদের। 22সদাপ্রভু আমাকে এই কথা বলতে বললেন, “লোকদের মৃতদেহ গোবরের মত খোলা মাঠে পড়ে থাকবে; যারা ফসল কাটে তাদের পিছনে কেটে ফেলে রাখা শস্যের মত সেগুলো পড়ে থাকবে, কেউ তাদের জড়ো করবে না।” 23সদাপ্রভু বলছেন, “জ্ঞানী লোকেরা তাদের জ্ঞানের গর্ব না করুক, কিম্বা শক্তিশালীরা তাদের শক্তির গর্ব না করুক কিম্বা ধনীরা তাদের ধনের গর্ব না করুক, 24কিন্তু যে গর্ব করতে চায় সে এই নিয়ে গর্ব করুক যে, সে আমাকে বোঝে ও জানে, অর্থাৎ সে জানে যে, আমিই সদাপ্রভু; আমার ভালবাসা অটল আর পৃথিবীতে আমার কাজ ন্যায়ে ও সততায় পূর্ণ। এই সমস্ত বিষয়েই আমি আনন্দ পাই। আমি সদাপ্রভু এই কথা বলছি।” 25সদাপ্রভু বলছেন, “এমন দিন আসছে যখন আমি মিসর, যিহূদা, ইদোম, অম্মোন, মোয়াব এবং মরু-এলাকায় বাসকারী যারা মাথার দু’পাশের চুল কাটে তাদের সকলকে শাস্তি দেব। তাদের কেবল দেহের সুন্নত করানো হয়েছে, অন্তরের সুন্নত করানো হয় নি; আর ইস্রায়েলীয়দেরও অন্তরের সুন্নত করানো হয় নি।”

will be added

X\