Jeremiah 30

1সদাপ্রভুর কাছ থেকে এই বাক্য যিরমিয়ের কাছে প্রকাশিত হল, 2“আমি ইস্রায়েলের ঈশ্বর সদাপ্রভু বলছি, আমি তোমাকে যে সমস্ত কথা বলেছি তা সব তুমি একটা বইয়ে লিখে রাখ, 3কারণ এমন দিন আসছে যখন আমি আমার লোক ইস্রায়েল ও যিহূদার অবস্থা ফিরাব এবং যে দেশ আমি তাদের পূর্বপুরুষদের দিয়েছিলাম সেই দেশে তাদের ফিরিয়ে আনব, আর তা তাদের দখলে থাকবে।” 4ইস্রায়েল ও যিহূদা সম্বন্ধে সদাপ্রভু এই কথা বললেন, 5“আমি সদাপ্রভু বলছি, শান্তির চিৎকার নয় বরং ভীষণ ভয়ের চিৎকার শোনা গেছে। 6তোমরা জিজ্ঞাসা করে দেখ, পুরুষ কি গর্ভে সন্তান ধরতে পারে? তাহলে কেন আমি প্রত্যেকটি শক্তিশালী পুরুষকে প্রসব যন্ত্রণা ভোগ করা স্ত্রীলোকের মত পেটের উপর হাত রাখতে ও সকলের মুখ মুত্যুর মত ফ্যাকাশে দেখতে পাচ্ছি? 7হায়, সেই দিনটা কি ভয়ংকর হবে! সেই রকম আর কোন দিন হবে না। তখন হবে যাকোবের কষ্টের সময়, কিন্তু তা থেকে তাকে উদ্ধার করা হবে। 8“আমি সর্বক্ষমতার অধিকারী সদাপ্রভু বলছি, সেই দিন আমি তাদের ঘাড় থেকে জোয়াল ভেংগে ফেলব এবং তাদের বাঁধন ছিঁড়ে ফেলব; বিদেশীরা আর তাদের দাস করে রাখবে না। 9তার বদলে তারা তাদের ঈশ্বর সদাপ্রভুর ও তাদের রাজা দায়ূদের একজন বংশধরের সেবা করবে যাঁকে আমি তাদের রাজা করব। 10“কাজেই হে আমার দাস যাকোব, ভয় কোরো না; হে ইস্রায়েল, উৎসাহহীন হোয়ো না। আমি দূরের জায়গা থেকে তোমাকে ও বন্দী থাকা দেশ থেকে তোমার সন্তানদের নিশ্চয়ই উদ্ধার করব। যাকোব আবার শান্তি ও নিরাপদ বোধ করবে এবং কেউ তাকে ভয় দেখাবে না। 11আমি তোমার সংগে সংগে আছি এবং আমি তোমাকে উদ্ধার করব। যে সব জাতির মধ্যে আমি তোমাদের ছড়িয়ে রেখেছিলাম আমি তাদের সম্পূর্ণভাবে ধ্বংস করব, কিন্তু তোমাদের আমি সম্পূর্ণভাবে ধ্বংস করব না। তবে একেবারে শাস্তি না দিয়েও আমি তোমাদের ছাড়ব না, কিন্তু ন্যায়বিচার দিয়ে আমি তোমাদের শাসন করব।” 12সদাপ্রভু বলছেন, “তোমার ঘা ভাল করা যায় না, তোমার আঘাত চিকিৎসার বাইরে। 13তোমার পক্ষে কথা বলবার কেউ নেই, তোমার ঘায়ের ওষুধ নেই, তোমার ভাল হওয়ার কোন আশাও নেই। 14তোমার সব প্রেমিকেরা তোমাকে ভুলে গেছে; তারা তোমার বিষয় ভাবে না। আমি তোমাকে শত্রুর আঘাতের মত আঘাত করেছি এবং নিষ্ঠুরের মত শাস্তি দিয়েছি, কারণ তোমার অন্যায় খুব বেশী আর তোমার পাপ অনেক। 15তোমার ঘা যখন ভাল করা যাবে না তখন তোমার ব্যথার জন্য কেন তুমি চিৎকার করছ? তোমার অনেক অন্যায় ও পাপের জন্যই আমি তোমার প্রতি এই সব করেছি। 16“কিন্তু যারা তোমাকে শেষ করে দিচ্ছে তাদের সবাইকে শেষ করে ফেলা হবে; তোমার সব শত্রুরা বন্দীদশায় যাবে। যারা তোমাকে লুট করছে তাদেরও লুট করা হবে; যারা তোমার জিনিস কেড়ে নিচ্ছে আমি তাদের জিনিসও কেড়ে নিতে দেব। লোকে তোমাকে বলে, ‘এই সেই দূর করে দেওয়া সিয়োন যার খোঁজ কেউ করে না, 17কিন্তু তবুও আমি তোমার স্বাস্থ্য ফিরাব এবং তোমার ঘা ভাল করে দেব।’ ” 18সদাপ্রভু বলছেন, “আমি যাকোবের বংশের লোকদের অবস্থা ফিরাব এবং তাদের উপরে মমতা করব। শহরটাকে তার ধ্বংসস্থানের উপরে আবার গড়ে তোলা হবে আর রাজবাড়ীটা দাঁড়িয়ে থাকবে তার আগের জায়গায়। 19সেগুলো থেকে বের হবে ধন্যবাদের গান আর আনন্দের শব্দ। আমি তাদের লোকসংখ্যা বাড়াব, তারা কমে যাবে না। আমি তাদের সম্মানিত করে তুলব, তাদের কেউ তুচ্ছ করবে না। 20তাদের ছেলেমেয়েরা আগের দিনের মতই হবে, আর আমার সামনেই তাদের সমাজ স্থাপিত হবে। যারা তাদের অত্যাচার করবে আমি তাদের শাস্তি দেব। 21তাদের নেতা হবে তাদেরই একজন; তাদের মধ্য থেকেই তাদের শাসনকর্তা উঠবে। আমি তাকে ডাকব আর সে আমার কাছে আসবে, কারণ আমি না ডাকলে কে সাহস করে আমার কাছে আসতে পারে? 22কাজেই তোমরা আমার লোক হবে আর আমি তোমাদের ঈশ্বর হব।” 23দেখ, সদাপ্রভুর ক্রোধ ঝড়ের মত ফেটে পড়বে, তাড়িয়ে নেওয়া একটা বাতাস ঘুরে ঘুরে দুষ্টদের মাথার উপরে নেমে আসবে। 24সদাপ্রভু যে পর্যন্ত না তাঁর অন্তরের উদ্দেশ্য পুরোপুরিভাবে কাজে লাগান সেই পর্যন্ত তাঁর ভয়ংকর ক্রোধ ফিরে যাবে না। ভবিষ্যতে তোমরা এটা বুঝতে পারবে।

will be added

X\