Isaiah 62

1আমি সিয়োনের পক্ষে আছি তাই চুপ করে থাকব না, যিরূশালেমের পক্ষে আছি তাই বসে থাকব না, যে পর্যন্ত না তার সততা ভোরের উজ্জ্বলতার মত আর তার উদ্ধার জ্বলন্ত মশালের মত হয়ে দেখা দেয়। 2হে যিরূশালেম, জাতিরা তোমার সততা আর সমস্ত রাজারা তোমার মহিমা দেখবে। তোমাকে একটা নতুন নামে ডাকা হবে; সদাপ্রভুই সেই নাম দেবেন। 3তুমি সদাপ্রভুর হাতে একটা জাঁকজমকপূর্ণ মুকুট হবে আর তোমার ঈশ্বরের হাতে হবে একটা রাজমুকুট। 4তারা আর তোমাকে “ত্যাগ করা” বলবে না কিম্বা তোমার দেশের নাম “জনশূন্য” দেবে না, বরং তোমাকে “আমার প্রীতির পাত্রী” বলা হবে, আর তোমার দেশকে “বিবাহিতা” বলা হবে, কারণ সদাপ্রভু তোমাকে নিয়ে খুশী হবেন আর তোমার দেশের বিয়ে হবে। 5একজন যুবক যেমন একজন কুমারী মেয়েকে বিয়ে করে তেমনি তোমার লোকেরা তোমাকে বিয়ে করবে; বর যেমন কনেকে নিয়ে আনন্দ করে তেমনি তোমার ঈশ্বরও তোমাকে নিয়ে আনন্দ করবেন। 6হে যিরূশালেম, আমি তোমার দেয়ালের উপর পাহারাদার নিযুক্ত করেছি; তারা দিনে বা রাতে কখনও চুপ করে থাকবে না। ওহে পাহারাদারেরা, যে পর্যন্ত না সদাপ্রভু যিরূশালেমকে স্থাপন করেন আর তাকে পৃথিবীর মধ্যে প্রশংসার পাত্র করে তোলেন সেই পর্যন্ত তোমরা সদাপ্রভুকে তাঁর প্রতিজ্ঞার কথা মনে করিয়ে দাও; নিজেদের বিশ্রাম দিয়ো না আর তাঁকেও বিশ্রাম দিয়ো না। 8সদাপ্রভু তাঁর ডান হাত, তাঁর শক্তিশালী হাত দিয়ে শপথ করে বলেছেন, “আমি আর কখনও তোমার শস্য খাবার হিসাবে শত্রুদের দেব না এবং যে আংগুর-রসের জন্য তোমরা পরিশ্রম করেছ তা বিদেশীরা আর কখনও খাবে না। 9যারা ফসল কেটে জড়ো করবে তারাই সেই ফসল খাবে আর সদাপ্রভুর প্রশংসা করবে। যারা আংগুর জড়ো করবে তারা আমার পবিত্র জায়গার উঠানে তার রস খাবে।” 10তোমরা এগিয়ে যাও, ফটকের মধ্য দিয়ে এগিয়ে যাও, লোকদের জন্য পথ প্রস্তুত কর। তোমরা রাজপথ তৈরী কর, তৈরী কর। সব পাথর সরিয়ে দাও; জাতিদের জন্য একটা পতাকা তোল। 11সদাপ্রভু পৃথিবীর শেষ সীমা পর্যন্ত ঘোষণা করছেন, “সিয়োন-কন্যাকে বল, ‘দেখ, তোমার উদ্ধারকর্তা আসছেন। দেখ, তিনি যে পুরস্কার পেয়েছেন তা তাঁর সংগেই আছে; তাঁর পাওনা তাঁর কাছেই আছে।’ ” 12তার লোকদের বলা হবে, “সদাপ্রভুর উদ্দেশ্যে আলাদা করা লোক, অর্থাৎ সদাপ্রভুর মুক্ত করা লোক।” হে যিরূশালেম, তোমাকে বলা হবে, “খুঁজে পাওয়া শহর, অর্থাৎ ফিরিয়ে আনা শহর।”


Copyright
Learn More

will be added

X\