Ezekiel 44

1তারপর সেই মানুষটি আমাকে উপাসনা-ঘরের পূর্বমুখী বাইরের ফটকের কাছে ফিরিয়ে আনলেন; ফটকটা বন্ধ ছিল। 2সদাপ্রভু আমাকে বললেন, “এই ফটকটা বন্ধই থাকবে, খোলা হবে না যাতে কেউ এর ভিতর দিয়ে ঢুকতে না পারে। এটা বন্ধ থাকবে, কারণ ইস্রায়েলের ঈশ্বর সদাপ্রভু এর মধ্য দিয়ে ঢুকেছেন। 3কেবলমাত্র শাসনকর্তাই ফটকের মধ্যে বসে সদাপ্রভুর সামনে খেতে পারবে। সে শেষের কামরা দিয়ে ফটকে ঢুকবে আর একই পথ দিয়ে বের হবে।” 4তারপর সেই মানুষটি আমাকে উত্তর ফটকের পথ দিয়ে উপাসনা-ঘরের সামনে নিয়ে আসলেন। আমি দেখলাম সদাপ্রভুর ঘরটা তাঁর মহিমায় ভরে গেছে; তখন আমি উবুড় হয়ে পড়লাম। 5তখন সদাপ্রভু আমাকে বললেন, “হে মানুষের সন্তান, তুমি ভাল করে দেখ ও কান দিয়ে শোন এবং আমার ঘর সম্বন্ধে আমি তোমাকে যে সব নিয়ম ও আইন-কানুনের বিষয় বলব তার প্রত্যেকটিতে মনোযোগ দাও। উপাসনা-ঘরে কারা ঢুকতে পারবে এবং কারা ঢুকতে পারবে না সেই বিষয়ে মনোযোগ দাও। 6তুমি বিদ্রোহী জাতি ইস্রায়েলকে বল যে, প্রভু সদাপ্রভু বলছেন, ‘হে ইস্রায়েলীয়েরা, তোমাদের জঘন্য আচার-ব্যবহার যথেষ্ট হয়েছে। 7তোমাদের অন্যান্য জঘন্য আচার-ব্যবহারের সংগে তোমরা আমার কাছে খাবার, চর্বি ও রক্ত উৎসর্গ করবার সময় অন্তর ও দেহে সুন্নত-না-করানো বিদেশীদের আমার ঘরে এনে আমার ঘর অপবিত্র করেছ এবং তাদের কাজের মধ্য দিয়ে তোমরা আমার ব্যবস্থা বাতিল করেছ। 8আমার পবিত্র জিনিসগুলোর প্রতি তোমাদের যে কর্তব্য করবার কথা তা না করে আমার ঘরের ভার তোমরা অন্যদের হাতে তুলে দিয়েছ। 9যে বিদেশীদের অন্তর ও দেহের সুন্নত করানো হয় নি তারা আমার ঘরে ঢুকতে পারবে না; এমন কি, ইস্রায়েলীয়দের মধ্যে বাস করা বিদেশীরাও পারবে না। 10“‘ইস্রায়েলীয়েরা যখন বিপথে গিয়েছিল তখন তাদের সংগে যে লেবীয়েরা আমাকে ছেড়ে তাদের প্রতিমাগুলোর পিছনে ঘুরে বেড়িয়ে আমার কাছ থেকে দূরে সরে গিয়েছিল তাদের পাপের ফল তাদের বহন করতেই হবে। 11তবুও উপাসনা-ঘরের ফটকগুলো রক্ষার ভার পেয়ে ও সেখানে কাজ করে তারা আমার ঘরের সেবা-কাজ করতে পারবে। তারা পোড়ানো-উৎসর্গের পশু জবাই করতে ও লোকদের জন্য উৎসর্গের অনুষ্ঠান করতে পারবে এবং লোকদের সেবা করবার জন্য তাদের সামনে দাঁড়াতে পারবে। 12কিন্তু তারা প্রতিমাগুলোর সামনে লোকদের সেবা করেছে এবং ইস্রায়েল জাতিকে পাপে ফেলেছে, সেইজন্য আমি প্রভু সদাপ্রভু শপথ করেছি যে, তাদের পাপের ফল তাদের বহন করতেই হবে। 13তারা পুরোহিত হিসাবে আমার সেবা করবার জন্য আমার কাছে আসবে না কিম্বা আমার কোন পবিত্র কিম্বা মহাপবিত্র জিনিসের কাছে আসতে পারবে না; তাদের জঘন্য আচার-ব্যবহারের লজ্জা তাদের বহন করতেই হবে। 14তবুও উপাসনা-ঘরের প্রতি কর্তব্য ও সেখানকার সমস্ত কাজের ভার আমি তাদের উপর দেব। 15“‘কিন্তু ইস্রায়েলীয়েরা যখন আমার কাছ থেকে বিপথে গিয়েছিল তখন সাদোকের বংশের যে লেবীয়েরা পুরোহিত হিসাবে আমার ঘরে বিশ্বস্তভাবে তাদের কর্তব্য করেছে তারাই আমার সেবা-কাজ করতে আমার কাছে আসতে পারবে; তারা চর্বি ও রক্ত উৎসর্গ করবার জন্য আমার সামনে দাঁড়াতে পারবে। আমি প্রভু সদাপ্রভু এই কথা বলছি। 16তারাই কেবল আমার ঘরে ঢুকতে পারবে; কেবল তারাই আমার সেবা-কাজের জন্য আমার টেবিলের কাছে আসতে পারবে এবং তারাই আমার ঘরের সমস্ত কাজ করবে। 17“‘মসীনার পোশাক পরে তারা ভিতরের উঠানের ফটকগুলো দিয়ে ঢুকবে; ভিতরের উঠানের ফটকগুলোর কাছে কিম্বা উপাসনা-ঘরের মধ্যে সেবা-কাজের সময় তারা কোন পশমের পোশাক পরতে পারবে না। 18তাদের মাথায় মসীনার পাগড়ী থাকবে এবং তারা মসীনার জাংগিয়া পরবে; যাতে ঘাম হয় এমন কাপড় তারা পরবে না। 19তারা যখন বাইরের উঠানে থাকা লোকদের কাছে যাবে তখন সেবা-কাজের জন্য তারা যে পোশাক পরেছিল তা খুলে পবিত্র কামরায় রেখে অন্য কাপড়-চোপড় পরবে, যাতে তাদের পোশাকের ছোঁয়ায় লোকেরা আমার উদ্দেশ্যে আলাদা হয়ে না যায়। 20“‘তাদের মাথার চুল তারা কামিয়ে ফেলবে না কিম্বা চুল লম্বা রাখবে না কিন্তু চুল ছোট করে কাটবে। 21কোন পুরোহিত আংগুর-রস খেয়ে ভিতরের উঠানে ঢুকবে না। 22বিধবা কিম্বা স্বামী যাকে ছেড়ে দিয়েছে এমন কোন স্ত্রীলোককে তারা বিয়ে করবে না; তারা কেবল ইস্রায়েল জাতির কুমারী মেয়েদের কিম্বা পুরোহিতের বিধবা স্ত্রীকে বিয়ে করতে পারবে। 23আমার উদ্দেশ্যে যা আলাদা করা হয়েছে ও যা আলাদা করা হয় নি তার মধ্যে পার্থক্য কি তা তারা আমার লোকদের শিক্ষা দেবে এবং কোন্‌টা শুচি ও কোন্‌টা অশুচি তা তাদের দেখিয়ে দেবে। 24“‘কোন মামলা-মকদ্দমা হলে পুরোহিতেরা বিচারকের কাজ করবে এবং আমার নির্দেশ অনুসারে তার রায় দেবে। আমার নির্দিষ্ট করা সব পর্বগুলোর জন্য তারা আমার আইন-কানুন ও নিয়মগুলো পালন করবে এবং বিশ্রাম দিনগুলোর পবিত্রতা রক্ষা করবে। 25“‘পুরোহিত কোন মৃত লোকের কাছে গিয়ে নিজেকে অশুচি করবে না; কিন্তু মা-বাবা, ছেলে-মেয়ে, ভাই কিম্বা অবিবাহিতা বোনের জন্য নিজেকে অশুচি করতে পারবে। 26শুচি হলে পর তাকে সাত দিন অপেক্ষা করতে হবে। 27তারপর যেদিন সে সেবা-কাজের জন্য উপাসনা-ঘরের ভিতরের উঠানে যাবে সেই দিন তাকে নিজের জন্য পাপ-উৎসর্গের অনুষ্ঠান করতে হবে। আমি প্রভু সদাপ্রভু এই কথা বলছি। 28“‘পুরোহিতদের সম্পত্তি বলতে কেবল আমিই থাকব। তোমরা ইস্রায়েলীয়েরা তোমাদের দেশে তাদের কোন সম্পত্তি দেবে না; আমিই হব তাদের সম্পত্তি। 29তারা শস্য-উৎসর্গ, পাপ-উৎসর্গ ও দোষ-উৎসর্গের জিনিস খাবে; ইস্রায়েল দেশে সদাপ্রভুর উদ্দেশে দেওয়া প্রত্যেকটি জিনিসই তাদের হবে; সেগুলো ছাড়িয়ে আনা যাবে না। 30প্রথমে কাটা সব রকম ফসলের সবচেয়ে ভাল অংশটা এবং তোমাদের সমস্ত উপহারগুলো পুরোহিতদের হবে। তোমাদের নতুন ময়দার প্রথম অংশ তোমরা তাদের দেবে যাতে তোমাদের পরিবারের উপর আশীর্বাদ থাকে। 31মরে গেছে কিম্বা বুনো জানোয়ারে ছিঁড়ে ফেলেছে এমন কোন পাখী বা পশু পুরোহিতেরা খাবে না।

will be added

X\