Exodus 1

1ইস্রায়েলের, অর্থাৎ যাকোবের সংগে তাঁর যে সব ছেলেরা নিজের নিজের পরিবার নিয়ে মিসর দেশে গিয়েছিলেন তাদের নাম হল রূবেণ, শিমিয়োন, লেবি, যিহূদা, 3ইষাখর, সবূলূন, বিন্যামীন, দান, নপ্তালি, গাদ ও আশের। তা ছাড়া যোষেফ আগেই মিসরে গিয়েছিলেন। যাকোবের বংশের এই সব লোকেরা সংখ্যায় ছিল মোট সত্তরজন। 6পরে যোষেফ, তাঁর ভাইয়েরা এবং তাঁদের সময়কার সবাই মারা গেলেন। 7কিন্তু ইস্রায়েলীয়দের বংশবৃদ্ধির ক্ষমতা কম ছিল না; তারা সংখ্যায় বেড়ে উঠে চারদিকে ছড়িয়ে পড়ল এবং খুব শক্তিশালী হয়ে উঠল, আর তাদের দিয়ে মিসর দেশটা ভরে গেল। 8পরে এক সময় মিসর দেশের সমস্ত ক্ষমতা এমন একজন নতুন রাজার হাতে গেল যিনি যোষেফের বিষয় কিছুই জানতেন না। 9তিনি তাঁর প্রজাদের বললেন, “দেখ, ইস্রায়েলীয়েরা আমাদের চেয়ে সংখ্যায় এবং শক্তিতে বেড়ে উঠেছে। 10তাদের সংখ্যা যেন আর বাড়তে না পারে সেইজন্য এস, আমরা তাদের সংগে কৌশল খাটিয়ে চলি; তা না হলে যুদ্ধের সময়ে তারা হয়তো আমাদের শত্রুদের সংগে হাত মিলিয়ে আমাদের বিরুদ্ধে যুদ্ধ করবে এবং পরে দেশ ছেড়ে চলে যাবে।” 11তাই কঠিন পরিশ্রমের মধ্য দিয়ে ইস্রায়েলীয়দের উপর অত্যাচার করবার উদ্দেশ্যে মিসরীয়েরা তাদের উপর সর্দার নিযুক্ত করল। ফরৌণের শস্য মজুদ করবার জন্য ইস্রায়েলীয়েরা পিথোম ও রামিষেষ নামে দু’টা শহর তৈরী করল। 12কিন্তু তাদের উপর যতই অত্যাচার করা হল ততই তারা সংখ্যায় বেড়ে গিয়ে দেশের সব দিকে ছড়িয়ে পড়ল। এতে ইস্রায়েলীয়দের দরুন মিসরীয়দের মনে খুব ভয় হল। 13তারা তাদের আরও কঠিন পরিশ্রম করতে বাধ্য করল। 14ক্ষেতের অন্য সব কাজের সংগে তারা তাদের উপর চুনসুরকি আর ইটের কাজের কঠিন পরিশ্রমও চাপিয়ে দিল এবং তাদের জীবন তেতো করে তুলল। এই সব কঠিন কাজ করাতে গিয়ে মিসরীয়েরা তাদের প্রতি খুব নিষ্ঠুর ব্যবহার করত। 15এছাড়া শিফ্রা ও পূয়া নামে দু’জন ইব্রীয়, অর্থাৎ ইস্রায়েলীয় ধাইকে মিসরের রাজা বলে দিলেন, 16“সন্তান প্রসব করবার সময় ইব্রীয় স্ত্রীলোকদের সাহায্য করতে গিয়ে তোমরা ভাল করে লক্ষ্য করবে তাদের সন্তানেরা ছেলে না মেয়ে; ছেলে হলে তাদের মেরে ফেলবে আর মেয়ে হলে বাঁচিয়ে রাখবে।” 17কিন্তু সেই ধাইয়েরা ঈশ্বরকে ভয় করে চলত। তাই মিসরের রাজার আদেশ মত কাজ না করে তারা ছেলেদেরও বাঁচিয়ে রাখতে লাগল। 18তখন রাজা সেই ধাইদের ডাকিয়ে এনে বললেন, “কেন তোমরা এই কাজ করছ? ছেলেদের বাঁচিয়ে রাখছ কেন?” 19উত্তরে তারা ফরৌণকে বলল, “ইব্রীয় স্ত্রীলোকেরা মিসরীয় স্ত্রীলোকদের মত নয়। তাদের শক্তি এত বেশী যে, ধাই তাদের কাছে পৌঁছাবার আগেই তাদের সন্তান হয়ে যায়।” 20ঈশ্বর সেই ধাইদের মংগল করলেন। ইস্রায়েলীয়দের লোকসংখ্যা বাড়তেই থাকল এবং তারা খুব শক্তিশালী হয়ে উঠল। 21সেই ধাইয়েরা ঈশ্বরকে ভক্তি করত বলে তিনি তাদের সন্তানদের দিয়ে বংশ গড়ে তুললেন। 22পরে ফরৌণ তাঁর প্রজাদের উপর এই আদেশ জারি করলেন, “ইব্রীয়দের মধ্যে কোন ছেলের জন্ম হলে তোমরা তাকে নীল নদীতে ফেলে দেবে, কিন্তু মেয়েদের সবাইকে বাঁচিয়ে রাখবে।”

will be added

X\