প্রেরিত 6

1সেই সময়ে শিষ্যদের সংখ্যা বেড়ে যাচ্ছিল। তখন শিষ্যদের মধ্যে যে যিহূদীরা গ্রীক ভাষায় কথা বলত তারা ইব্রীয় ভাষায় কথা বলা যিহূদীদের এই বলে দোষ দিতে লাগল যে, রোজই খাবার দেবার সময়ে তাদের বিধবা স্ত্রীলোকেরা কিছুই পায় না। 2এতে সেই বারোজন প্রেরিত্‌ সব শিষ্যদের এক জায়গায় ডেকে বললেন, “ঈশ্বরের বাক্য প্রচার করা ছেড়ে খাবার দেওয়ার ব্যাপারে ব্যস্ত থাকা আমাদের পক্ষে ঠিক নয়। 3ভাইয়েরা, তোমাদের মধ্য থেকে এমন সাতজন লোককে তোমরা বেছে নাও যাঁদের সবাই সম্মান করে এবং যাঁরা পবিত্র আত্মায় ও জ্ঞানে পূর্ণ। আমরা তাঁদের উপরেই এই সেবা-কাজের ভার দিয়ে নিজেরা প্রার্থনা ও ঈশ্বরের বাক্য প্রচারে মন দেব।” 5দলের সকলেরই এই কথা ভাল লাগল। বিশ্বাসে ও পবিত্র আত্মায় পূর্ণ স্তিফানকে তারা বেছে নিল। এছাড়া তারা ফিলিপ, প্রখর, নীকানর, তীমোন, পার্মিনা ও আন্তিয়খিয়া শহরের নিকলায়কেও বেছে নিল। এই নিকলায় অযিহূদী হয়েও যিহূদী ধর্ম পালন করতেন। 6পরে তারা এই লোকদের প্রেরিত্‌দের কাছে নিয়ে গেল। তখন প্রেরিতেরা প্রার্থনা করলেন এবং কাজে নিযুক্ত করবার জন্য তাঁদের উপর হাত রাখলেন। 7এইভাবে ঈশ্বরের বাক্য ছড়িয়ে পড়তে লাগল, আর যিরূশালেমে শিষ্যদের সংখ্যা খুব তাড়াতাড়ি বেড়ে যেতে লাগল এবং পুরোহিতদের মধ্যে অনেকে খ্রীষ্টীয় ধর্ম-বিশ্বাসকে মেনে নিলেন। 8স্তিফান ঈশ্বরের দয়া ও শক্তিতে পূর্ণ হয়ে লোকদের মধ্যে অনেক আশ্চর্র্য কাজ ও চিহ্ন-কাজ করতে লাগলেন। 9যে সমাজ-ঘরকে মুক্ত-করা লোকদের সমাজ-ঘর বলা হত সেই সমাজ-ঘরের কয়েকজন লোক স্তিফানের পিছনে লাগল। তারা ছিল কুরীণী ও আলেক্‌জান্দ্রিয়া শহরের এবং কিলিকিয়া ও এশিয়া প্রদেশের কয়েকজন যিহূদী। 10তারা স্তিফানের সংগে তর্ক জুড়ে দিল, কিন্তু স্তিফান পবিত্র আত্মার মধ্য দিয়ে খুব জ্ঞানের সংগে কথা বলছিলেন। সেইজন্য তারা তাঁর বিরুদ্ধে দাঁড়াতে পারছিল না। 11তখন সেই যিহূদীরা গোপনে কয়েকজন লোককে এই কথা বলতে উস্‌কিয়ে দিল, “আমরা স্তিফানকে মোশি ও ঈশ্বরের বিরুদ্ধে অপমানের কথা বলতে শুনেছি।” 12এইভাবে তারা লোকদের, বৃদ্ধ নেতাদের ও ধর্ম-শিক্ষকদের ক্ষেপিয়ে তুলল আর স্তিফানকে ধরে মহাসভার সামনে আনল। 13তারা কয়েকজন মিথ্যা সাক্ষী দাঁড় করাল। এই মিথ্যা সাক্ষীরা বলল, “এই লোকটা সব সময় উপাসনা-ঘরের বিরুদ্ধে ও মোশির আইন-কানুনের বিরুদ্ধে কথা বলে। 14আমরা তাকে এই কথা বলতে শুনেছি যে, সেই নাসরৎ গ্রামের যীশু এই উপাসনা-ঘর ভেংগে ফেলবে এবং মোশি যে চলতি নিয়মগুলো আমাদের দিয়ে গিয়েছেন সেগুলোও বদ্‌লে ফেলবে।” 15যাঁরা সেই মহাসভায় বসে ছিলেন তাঁরা সবাই তখন স্তিফানের দিকে তাকিয়ে দেখলেন, তাঁর মুখ একজন স্বর্গদূতের মুখের মত হয়ে গেছে।

will be added

X\