২ তীমথিয় 2

1সন্তান আমার, খ্রীষ্ট যীশুর দয়ায় তুমি শক্তিশালী হও। 2অনেক সাক্ষীর সামনে আমার মুখে যে সব শিক্ষার কথা তুমি শুনেছ সেই শিক্ষা ধরে রাখবার জন্য তুমি তা এমন সব বিশ্বস্ত লোকদের দাও যাদের অন্যদের শিক্ষা দেবার যোগ্যতা আছে। 3খ্রীষ্ট যীশুর একজন উপযুক্ত সৈনিকের মত তুমি আমাদের সংগে কষ্ট সহ্য কর। 4যুদ্ধ করতে গিয়ে কেউ সংসারের মধ্যে নিজেকে জড়ায় না, যেন সৈন্য হিসাবে যিনি তাকে ভর্তি করেছেন তাঁকে সে সন্তুষ্ট করতে পারে। 5তেমনি করে প্রতিযোগিতার খেলায় যোগ দিয়ে কেউ যদি নিয়ম মত না খেলে তবে সে জয়ের মালা পায় না। 6যে চাষী পরিশ্রম করে তারই প্রথমে ফসলের ভাগ পাওয়া উচিত। 7আমি যা বলছি তা তুমি চিন্তা করে দেখো, কারণ প্রভুই তোমাকে সব বিষয় বুঝবার ক্ষমতা দান করবেন। 8যীশু খ্রীষ্ট সম্বন্ধে এই কথা মনে রেখো যে, তাঁকে মৃত্যু থেকে জীবিত করে তোলা হয়েছিল এবং তিনি দায়ূদের বংশের লোক ছিলেন। যে সুখবর আমি প্রচার করি তার মধ্যে এই কথা আছে, 9আর এই সুখবর প্রচারের জন্যই আমি কষ্ট ভোগ করছি; এমন কি, অপরাধীর মত আমাকে বাঁধাও হয়েছে। কিন্তু ঈশ্বরের বাক্যকে তো বাঁধা হয় নি। 10তাই ঈশ্বর যাদের বেছে নিয়েছেন তাদের জন্য আমি সব কিছু সহ্য করছি, যেন তারাও খ্রীষ্ট যীশুর মধ্য দিয়ে পাপ থেকে উদ্ধার পায় এবং চিরকালের মহিমা লাভ করে। 11এই কথা বিশ্বাসযোগ্য যে, খ্রীষ্টের সংগে যদি আমরা মরে থাকি, তবে তাঁরই সংগে আমরা জীবিতও থাকব। 12আমরা যদি ধৈর্য ধরে সহ্য করি, তবে তাঁর সংগে রাজত্বও করব। যদি তাঁকে আমরা অস্বীকার করি, তবে তিনিও আমাদের অস্বীকার করবেন। 13আমরা অবিশ্বস্ত হলেও তিনি বিশ্বস্ত থাকেন, কারণ তিনি নিজেকে অস্বীকার করতে পারেন না। 14এই সব কথা লোকদের মনে করিয়ে দিতে থাক। ঈশ্বরের সামনে তাদের সাবধান করে দাও যেন তারা বাজে কথা নিয়ে তর্কাতর্কি না করে। এর কোন দামই নেই, বরং যারা তা শোনে তাদের তা সর্বনাশ করে। 15যার উপর ঈশ্বর সন্তুষ্ট, অর্থাৎ যার লজ্জা পাবার কোন কারণ নেই সেই রকম কাজের লোক হিসাবে এবং যে নির্ভুল ভাবে সত্যের বাক্য শিক্ষা দেয় সেই রকম লোক হিসাবে নিজেকে ঈশ্বরের সামনে উপস্থিত করবার জন্য বিশেষভাবে আগ্রহী হও। 16ঈশ্বরের প্রতি ভক্তিহীন ও বাজে কথাবার্তা থেকে দূরে থাক, কারণ এই রকম কথাবার্তার জন্য লোকদের মনে ঈশ্বরের প্রতি ভক্তির ভাব কমে যেতে থাকবে। 17যারা এই রকম কথাবার্তা বলে তাদের শিক্ষা পচা ঘায়ের মত করে ছড়িয়ে পড়বে। এই রকম লোকদের মধ্যে আছে হুমিনায় ও ফিলীত। 18এরা ঈশ্বরের সত্য থেকে দূরে সরে গেছে। এরা বলে, বিশ্বাসীদের মৃত্যু থেকে জীবিত হয়ে ওঠা আগেই হয়ে গেছে। এরা কারও কারও বিশ্বাসকে নষ্ট করে ফেলেছে। 19তবু ঈশ্বরের গাঁথা শক্ত ভিত্তি দাঁড়িয়েই আছে, আর তার উপর সীলমোহরের মত করে এই কথাগুলো লেখা আছে, “প্রভু জানেন, কারা তাঁর,” আর “যে কেউ খ্রীষ্টকে প্রভু বলে ডাকে সে সমস্ত পাপ থেকে দূরে যাক।” 20বড় বাড়ীতে কেবল যে সোনা-রূপার বাসন থাকে তা নয়, কিন্তু কাঠের ও মাটির বাসনও থাকে। তার মধ্যে কতগুলো বাসন সম্মানের কাজে আর কতগুলো বাসন নীচু কাজে ব্যবহার করা হয়। 21যারা এই সব নীচু কাজের বাসনের মত, তাদের থেকে সরে এসে যদি কেউ নিজেকে শুচি করে তবে সে এমন বাসনের মত হবে যা সম্মানের কাজে ব্যবহার করা হয়। পবিত্র উদ্দেশ্যে তাকে আলাদা করে রাখা হবে, সে প্রভুর কাজে লাগবে এবং সব রকম ভাল কাজ করবার জন্য সে প্রস্তুত থাকবে। 22যৌবনের মন্দ কামনা-বাসনা থেকে তুমি পালাও এবং যাঁরা খাঁটি অন্তরে প্রভুকে ডাকে তাদের সংগে সৎ জীবন, বিশ্বাস, ভালবাসা ও শান্তির জন্য আগ্রহী হও। 23বাজে, মূর্খ তর্কাতর্কিতে যোগ দিয়ো না, কারণ তুমি তো জান সেগুলো শেষ পর্যন্ত ঝগড়া-বিবাদের সৃষ্টি করে। 24যিনি প্রভুর দাস, তাঁর ঝগড়া করা উচিত নয়, বরং তাঁকে সকলের প্রতি দয়ালু হতে হবে। তাঁর অন্যদের শিক্ষাদানের ক্ষমতা এবং সহ্যগুণ থাকতে হবে। 25যারা তাঁর বিরুদ্ধে দাঁড়ায় তাদের তাঁকে নম্রভাবে শিক্ষা দিতে হবে। সেই শিক্ষা যেন তিনি এই আশায় দেন যে, ঈশ্বর তাদের মন ফিরাবার সুযোগ দেবেন যাতে ঈশ্বরের সত্যকে তারা গভীর ভাবে বুঝতে পারে। 26তার ফলে তারা শয়তানের ফাঁদ থেকে পালিয়ে আসবে, কারণ শয়তান তার ইচ্ছা পালন করবার জন্য তাদের ধরেছিল।

will be added

X\