1 Samuel 23

1লোকেরা দায়ূদকে গিয়ে বলল, “দেখুন, পলেষ্টীয়েরা কিয়ীলা শহরটা আক্রমণ করেছে এবং সেখানকার খামারগুলোর শস্য লুট করছে।” 2দায়ূদ তখন সদাপ্রভুকে জিজ্ঞাসা করলেন, “আমি কি গিয়ে ঐ পলেষ্টীয়দের আক্রমণ করব?” উত্তরে সদাপ্রভু তাঁকে বললেন, “হ্যাঁ, যাও। পলেষ্টীয়দের আক্রমণ করে কিয়ীলা রক্ষা কর।” 3কিন্তু দায়ূদের লোকেরা বলল, “এই যিহূদা এলাকাতেই আমরা ভয়ে ভয়ে আছি; তার উপর কিয়ীলাতে পলেষ্টীয় সৈন্যদের আক্রমণ করতে যাওয়া কি আরও ভয়ের ব্যাপার নয়?” 4তখন দায়ূদ আবার সদাপ্রভুকে জিজাসা করলেন আর সদাপ্রভু উত্তরে তাঁকে বললেন, “তুমি কিয়ীলাতে যাও, আমি তোমার হাতে পলেষ্টীয়দের তুলে দেব।” 5দায়ূদ তখন তাঁর লোকদের নিয়ে কিয়ীলাতে গেলেন এবং পলেষ্টীয়দের সংগে যুদ্ধ করে তাদের গরু-ভেড়া সব নিয়ে আসলেন। তিনি পলেষ্টীয়দের অনেক লোককে মেরে ফেলে কিয়ীলার লোকদের রক্ষা করলেন। 6অহীমেলকের ছেলে অবিয়াথর কিয়ীলাতে দায়ূদের কাছে পালিয়ে আসবার সময় সংগে করে মহাপুরোহিতের এফোদখানা নিয়ে এসেছিলেন। 7দায়ূদ কিয়ীলাতে আছেন শুনে শৌল বললেন, “ঈশ্বর দায়ূদকে এবার আমার হাতে তুলে দিয়েছেন, কারণ শহরের ফটকগুলো হুড়কা দিয়ে বন্ধ করা যায় এমন একটা জায়গায় ঢুকে সে নিজেই নিজেকে আটক করে ফেলেছে।” 8কিয়ীলাতে গিয়ে দায়ূদ ও তাঁর লোকদের ঘেরাও করবার জন্য শৌল তাঁর সমস্ত সৈন্যদের যুদ্ধ করবার ডাক দিলেন। 9দায়ূদ যখন জানতে পারলেন যে, শৌল তাঁর বিরুদ্ধে ষড়যন্ত্র করছেন তখন তিনি পুরোহিত অবিয়াথরকে বললেন, “আপনার এফোদটা এখানে নিয়ে আসুন।” 10পরে তিনি বললেন, “হে ইস্রায়েলীয়দের ঈশ্বর সদাপ্রভু, তোমার দাস আমি নিশ্চয় করে জেনেছি যে, শৌল আমারই দরুন কিয়ীলা ধ্বংস করবার জন্য এখানে আসবার পরিকল্পনা করছেন। 11কিয়ীলার লোকেরা কি আমাকে তাঁর হাতে তুলে দেবে? আমি যেমন শুনেছি সেইভাবে শৌল কি সত্যিই এখানে আসবেন? হে ইস্রায়েলীয়দের ঈশ্বর সদাপ্রভু, তোমার এই দাসকে তুমি তা বলে দাও।” সদাপ্রভু বললেন, “হ্যাঁ, সে আসবে।” 12তখন দায়ূদ আবার জিজ্ঞাসা করলেন, “কিয়ীলার লোকেরা কি আমাকে ও আমার লোকদের শৌলের হাতে তুলে দেবে?” সদাপ্রভু বললেন, “হ্যাঁ, দেবে।” 13এই কথা শুনে দায়ূদ তাঁর সংগের প্রায় ছ’শো লোক নিয়ে কিয়ীলা ছেড়ে চলে গেলেন এবং এক জায়গা থেকে আর এক জায়গায় পালিয়ে বেড়াতে লাগলেন। দায়ূদ কিয়ীলা থেকে পালিয়ে গেছেন শুনে শৌল আর সেখানে গেলেন না। 14দায়ূদ মরু-এলাকার দুর্গের মত জায়গাগুলোতে এবং সীফ মরু-এলাকার পাহাড়ী জায়গায় থাকতে লাগলেন। দিনের পর দিন শৌল তাঁর খোঁজ করে চললেন কিন্তু ঈশ্বর তাঁর হাতে দায়ূদকে পড়তে দিলেন না। 15সীফ মরু-এলাকার হরেশে থাকবার সময় দায়ূদ শুনলেন যে, শৌল তাঁকে মেরে ফেলবার জন্য বের হয়েছেন। 16এদিকে শৌলের ছেলে যোনাথন হরেশে দায়ূদের কাছে গিয়ে তাঁকে ঈশ্বরের উপর নির্ভর করতে উৎসাহ দিলেন। 17যোনাথন বললেন, “তুমি ভয় কোরো না; আমার বাবা শৌলের হাতে তুমি ধরা পড়বে না। তুমিই ইস্রায়েল দেশের উপরে রাজত্ব করবে, আর আমার স্থান হবে তোমার পরেই। আমার বাবাও সেই কথা জানেন।” 18তাঁরা দু’জনেই সদাপ্রভুকে সাক্ষী রেখে একটা চুক্তি করলেন। পরে যোনাথন বাড়ী চলে গেলেন কিন্তু দায়ূদ হরেশেই রয়ে গেলেন। 19এদিকে সীফ গ্রামের লোকেরা গিবিয়াতে শৌলের কাছে গিয়ে বলল, “দায়ূদ আমাদের মধ্যেই লুকিয়ে আছে। সে হরেশের কাছে যিশীমোনের দক্ষিণে হখীলা পাহাড়ের দুর্গের মত জায়গাগুলোতে থাকে। 20মহারাজ, আপনার ইচ্ছামতই আপনি আসুন। তাকে রাজার হাতে তুলে দেওয়াই আমাদের কাজ।” 21উত্তরে শৌল বললেন, “সদাপ্রভু তোমাদের আশীর্বাদ করুন, কারণ আমার জন্য তোমাদের মমতা আছে। 22তোমরা গিয়ে আরও ভাল করে তার খোঁজ-খবর নাও; সে কোথায় থাকে আর কোথায় যায় এবং সেখানে কে তাকে দেখেছে তা জেনে নাও। আমি শুনেছি সে নাকি খুব চালাক। 23তার লুকাবার সমস্ত জায়গাগুলো খুঁজে বের করবে। তারপর সঠিক সংবাদ নিয়ে ফিরে আসলে পর আমি তোমাদের সংগে যাব। সে যদি দেশের মধ্যে থাকে তবে আমি যিহূদার সমস্ত বংশগুলোর মধ্য থেকে তাকে খুঁজে বের করবই।” 24সেই লোকেরা তখন শৌলের আগেই রওনা হয়ে সীফে ফিরে গেল। দায়ূদ তাঁর লোকদের নিয়ে তখন যিশীমোনের দক্ষিণে অরাবায় মায়োন মরু-এলাকায় ছিলেন। 25শৌল ও তাঁর লোকেরা দায়ূদের খোঁজ করতে গেলেন। দায়ূদ সেই খবর পেয়ে সেখান থেকে মায়োন মরু-এলাকার পাথুরে-পাহাড়ে গিয়ে রইলেন। শৌল সেই খবর পেয়ে সেখানে গিয়ে দায়ূদের পিছনে তাড়া করলেন। 26শৌল গেলেন পাহাড়ের এই পাশ দিয়ে আর দায়ূদ তাঁর লোকজন নিয়ে পাহাড়ের ওপাশে গেলেন। তাঁরা শৌলের কাছ থেকে পালাবার জন্য তাড়াহুড়া করছিলেন। এদিকে শৌল ও তাঁর সৈন্যেরা দায়ূদ ও তাঁর লোকদের ধরে ফেলবার জন্য তাঁদের ঘেরাও করছিলেন। 27এমন সময় একজন লোক এসে শৌলকে খবর দিল, “পলেষ্টীয়েরা দেশ আক্রমণ করেছে, আপনি শিগ্‌গির চলে আসুন।” 28এই কথা শুনে শৌল দায়ূদের পিছনে তাড়া করা বন্ধ করে পলেষ্টীয়দের বিরুদ্ধে এগিয়ে গেলেন। এইজন্য লোকে ঐ জায়গাটাকে বলে সেলা-হম্মলকোৎ (যার মানে “আলাদা হওয়ার পাহাড়”)। 29দায়ূদ সেখান থেকে ঐন-গদীর দুর্গের মত জায়গাগুলোতে গিয়ে বাস করতে লাগলেন।

will be added

X\